থানার মহিলা সেলে হারপিক খেয়ে যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা

By infobangla May14,2024

সরোয়ার রানা:: সিএমপি কর্ণফুলী থানার মহিলা সেলে হারপিক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে যুবক। মঙ্গলবার (১৪ মে) সৈন্ন্যারটেক থেকে ইভটিজিংয়ের অভিযোগে তাকে আটক করা হয়। বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৩ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছে। আটক যুবক কর্ণফুলী উপজেলা চরপাথরঘাটা ইউনিয়ন ৩ নং ওয়ার্ড মোহসেনে পাড়া মোঃ আলী ছেলে মোঃ আরমান (২১)। আরমান সৈন্ন্যারটেক এলাকায় ইউনিক বাল্ব কারখানার শ্রমিক। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন আগে নাসরিন নামে এক সহকর্মীর সাথে সম্পর্ক ছিল তার। পরিবার থেকে অন্য জায়গায় বিয়া করায়, সাবেক প্রেমিকা নাসরিন বিয়ের জন্য চাপ সৃষ্টি করলে দুজনের মধ্যে ঝগড়া সৃষ্টি হয়। ঝগড়া করতে করতে রাস্তায় আসলে এলাকার স্থানীয়রা আটক করে। পুলিশকে খবর দিলে টহল পুলিশের দায়িত্বরত অফিসার মোঃ বিল্লাল হোসেন থানায় নিয়ে যান। সেখানে মহিলা সেলে আটক রাখলে শৌচাগার থেকে হারপিক নিয়ে খেয়ে ফেলে সে। তৎক্ষণাৎ থানা পুলিশ তাকে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেলে নিয়ে যান।

কর্ণফুলী থানা ওসি মোঃ জহির হোসেন পিপিএম (বার) দৈনিক ইনফো বাংলা প্রতিনিধিকে জানান, “একজন গার্মেন্টস কর্মী ও একজন কলেজ ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার দায়ে স্থানীয়রা আরমান নামে একজনকে আটক করে থানা পুলিশকে খবর দেয় এবং পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ইভটিজিংয়ের দায়ে ঐ যুবককে গ্রেফতার করে। পরে পরিচ্ছিন্ন কর্মীর রেখে যাওয়া হারপিক খেয়ে সে আত্মহত্যার চেষ্টা করলে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।”

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *